আপনি যদি বাজেটের মধ্যে সেরা মোবাইল ফোনটি খুঁজে থাকেন তাহলে, আজকের পর্বে আপনি জানতে পারবেন 2023 সালের বাজেটের মধ্যে সেরা মোবাইল ফোনের দাম সম্পর্কে।

এবছরের সেরা মোবাইলগুলো এবং মোবাইল এর দাম দেখে নিন

আজকের ব্লগে আমরা আলোচনা করবো 15 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে বাজেট রেঞ্জের সেরা মোবাইল ফোনগুলো সম্পর্কে।

যার মধ্যে রয়েছে সেরা পারফর্মেন্স, ডিসপ্লে কোয়ালিটি, বাটারি এবং ফাস্ট চার্জিং।

এছাড়া রয়েছে প্রসেসর, র‌্যাম, ইন্টারনাল স্টোরেজ। সবকিছুর বিবেচনাতে আপনার জন্য কোন মোবাইলটি সেরা হবে তা আজকে জানতে পারবেন।

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে গেমিং। 15 থেকে 20 হাজার টাকা বাজেটের মধ্যে যদি কেউ গেমিং মোবাইল কিনতে চায় তাহলে কোনটা কিনবেন? এব্যাপারেও আলোচনা করা হবে।

যাইহোক! কথা না বাড়িয়ে সরাসরি আজকের আলোচনা চলে যাব। তবে আজকের আলোচনা শুরু করবো শেষ থেকে। মানে যে পাঁচটা মোবাইল সম্পর্কে আলোচনা করব তার মধ্যে শুরু হবে টপ ৫ থেকে।

মোবাইল ফেনের দাম

আপনি যদি বাজেটের মধ্যে মোবাইল ফোন খুঁজে থাকেন তবে আজকের ব্লগে জানতে পারবেন 15 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে বাজেট রেঞ্জের সেরা মোবাইল ফোন গুলো।

আর আমরা যতগুলো মোবাইল সম্পর্কে বলব তার সবগুলো আরো বিস্তারিত জানার জন্য কিছু লিংক শেয়ার করব।

আশা করি আপনি যদি নতুন কোন মোবাইল কিনতে চান এবং মোবাইল ফোনের দাম সম্পর্কে জানতে চান তাহলে এখানে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

আজকে যতগুলো মোবাইল রিভিউ করবো তার মধ্যে সবগুলোই থাকবে ব্রান্ডের মোবাইল। তাই বাজেট রেঞ্জের মধ্যে অবশ্যই ভালো ব্র্যান্ডের মোবাইল-ই থাকবে।

যে পাঁচটি মোবাইল ফোনের দাম সম্পর্কে বলব তার সবগুলোই গেমিং মোবাইল।

এবং যারা ভালো কোয়ালিটির ক্যামেরা খুঁজছেন তাদের জন্য পাঁচটি যেকোনো একটি কিনতে পারবেন।

তাই সবার আগে প্রতিটি মোবাইল ফোনের দাম জেনে নিন। আর আপনার গেম খেলাকে আরো স্মুথলি করে তুলুন।

যাদের ফটোগ্রাফিতে অনেক শখ রয়েছে তাদের জন্য বাজেট রেঞ্জের মধ্যে ৫টির মধ্যে যেটি ভালো লাগবে সেটি কিনতে পারবেন।

আমি যে শুধু মোবাইল ফোনের দাম বলে যাব তা কিন্তু নয়। মোবাইলটি যদি আপনি অনলাইনে কিনতে চান তাহলে সবচেয়ে কম দামে মোবাইল ফোন কেনার ওয়েবসাইট এর লিঙ্ক দিয়ে দেবো।

মোবাইল ফোনের দাম ২০২৩

আজকের আলোচনা থেকে জানতে পারবেন সেরা ৫টি মোবাইল ফোন সম্পর্কে। যেগুলো দিয়ে অনলাইন গেম পাবজি, ফ্রি ফায়ার এবং যারা ফটোগ্রাফি করতে চান তাদের জন্যও সেরা মোবাইল হবে।

তাহলে চলুন আজকের ব্লগের মাধ্যমে সেরা ৫টি মোবাইল সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক। আশা করি আজকের ব্লগটি আপনার ভালো লাগবে।

Samsung galaxy f22 price in bangladesh

বাংলাদেশ ছাড়াও সারা বিশ্বে জনপ্রিয় একটি ব্র্যান্ড হচ্ছে স্যামসাং। কিছুদিন আগে তারা একটি মোবাইল বাজারে এনেছে।

সেটা হচ্ছে Samsung galaxy f22। এখানে Samsung galaxy f22 price in bangladesh দেখে নিন।

মোবাইলটি বাজেট ফ্রেন্ডলি। যারা 15 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে সেরা মোবাইল খুঁজছেন, তাদের জন্য Samsung galaxy f22 এই মোবাইলটি।

তাহলে চলুন দেখে নিন Samsung galaxy f22 price in bangladesh এবং  Samsung galaxy f22 এর বিবরণ জেনে নিন।

Samsung mobile phone price in bangladesh - Samsung galaxy f22

বলে রাখি যে Samsung galaxy f22 মোবাইলটিতে ফুল এইচডি ডিসপ্লে দেয় নি। তবে রিফ্রেশ রেট কিন্তু 90 HZ আছে।

অনেকের মতে এই মোবাইলটিতে রিফ্রেশ রেট 90 HZ না দিয়ে 60 HZ দিয়ে ডিসপ্লেটি ফুল এইচডি দিলে ভালো হতো। আপনার মতামত কি? কমেন্ট করে জানিয়ে দিন।

Samsung galaxy f22 full specification

Samsung galaxy f22 মোবাইলটি আপনি খুবই স্মুথলি ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়া এই মোবাইলটির ডিসেপ্লে রিপ্রেস রেট ভালো হওয়ায় ব্যবহার করার সময় পুরোই স্মুথ একটা ভাব অনুভুব করবেন।

specification of Samsung galaxy f22:

Display: S, AMODE/HG+-/90HZ
CAMERA: 48+8+2+2//
FONT CAMERA: 13MP
BATTERY: 6000MAH
CHARGING: 15W

PRICE: 19,500৳

এই মোবাইলটি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন। তাহলে এই মোবাইলটির ফুল স্পেসিফিকেশন জানতে পারবেন। এবং এই লিংকে ক্লিক করলে ইউটিউবে রিভিউ দেখতে পাবেন।

আশা করি আপনি যদি এই মোবাইলটি কিনেন তাহলে,  এই মোবাইল দিয়ে আপনি ফটোগ্রাফি করার পাশাপাশি গেমও খেলতে পারবেন।

অনেকের মধ্যে এই মোবাইলটি দাম একটু বেশি। আসলে মোবাইলটাই স্যামসাং অফিশিয়াল মোবাইল। তাই দাম বেশি টা স্বাভাবিক।

আপনি যদি 15 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে স্যামসাং এই মোবাইলটি ছাড়া আরো মোবাইল খুঁজে থাকেন তাহলে এই লিঙ্কে ক্লিক করুন

এবং পরবর্তী মোবাইলগুলোতে প্রতিটার বাজেট একটু একটু করে বাড়বে। বাজেট বাড়ার পাশাপাশি বিকল্প মোবাইল এবং বিকল্প দামের কথাও উল্লেখ করব।

infinix note 11 pro price in bangladesh

যারা বাজেটের মধ্যে বেশ বড়সড় একটা মোবাইল চাচ্ছেন তাদের জন্য infinix note 11 pro মোবাইলটি সাজেশনে থাকবে।

আমরা দেখতে পাচ্ছি যে বেশ কিছু বছর থেকে ইনফিনিক্স বাজারে খুব ভালো ভালো মোবাইল আনছে। যেগুলো বাজেট ফ্রেন্ডলি।

ইনফিনিক্স এর এবার মার্কেটে আসা নতুন মোবাইলটি হচ্ছে infinix note 11 pro। চলুন আমরা জেনে নেই এই মোবাইলটিতে কি কি আছে।

আমরা যদিও বদলে আসছি যে থেকে 20000 টাকার মধ্যে বাজেট মোবাইল এর কথা। কিন্তু গেমারদের কথা বিবেচনা করে আমাদের বাজেটটা একটু বাড়বে।

মোবাইল ফোনের দাম ২০২২ - infinix note 11 pro price in bangladesh

infinix note 11 pro মোবাইলটিতে দেখতে পাচ্ছেন যে ফুল এইচডি এবং 120HZ  রিপ্লেসরেট রয়েছে। তাই ফুল এইচডি সাথে এই মোটামুটি ভালো একটা পারফরম্যান্স পাবেন।

আর ক্যামেরার কথা বলতে গেলে দেখা যায় মেইন ক্যামেরা রয়েছে 64 মেগাপিক্সেল। সেইসাথে 13 এবং 2 মেগাপিক্সেল রয়েছে।

ব্যাটারি সেকশনে রয়েছে 5000MAH ব্যাটারি। সেই সাথে রয়েছে ফাস্ট চার্জিং। এবং দেখতে পাচ্ছেন যে 33 ওয়ার্ড ফাস্ট চার্জিং।

এই মোবাইলটিতে রয়েছে 8 জিবি র‌্যাম। এবং 128 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

তাই infinix note 11 pro মোবাইলটিকে বাজট ফ্রেন্ডলি মোবাইল বলাই যায়।

আর মোবাইলটা দিয়ে গেমিং পারফরম্যান্সের পাশাপাশি ক্যামেরা কোয়ালিটি ভালো থাকায় ফটোগ্রাফিও করা যাবে।

তাই আশা করি infinix note 11 pro price in bangladesh জানতে পেরেছেন। মানে মোবাইলের দাম এবং বিবরণ জানতে পেরেছেন।

এই বাজেটের মধ্যে আরো মোবাইলফোন দেখতে এখানে ক্লিক করুন। আর এই মোবাইলটির ইউটিউব রিভিউ ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

realme 8 price in bangladesh

রিয়েলমি মোবাইল কোম্পানি কিছুদিন আগে realme 8 মোবাইলটি বাজারে লঞ্চ করেছে। ভালো কিছু স্পেসিফিকেশন নিয়ে এটি বাজারে জনপ্রিয়তা লাভ করেছে।

অন্যান্য ব্র্যান্ড এর মত রিয়েলমি ও ইউজার ফ্রেন্ডলি মোবাইল তৈরি করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার realme 8 লঞ্চ করেছে তারা।

চলুন জেনে নেই বাজারে নতুন আসা realme 8 মোবাইল স্পেসিফিকেশন এবং দাম। সেই সাথে আপনাদের সাথে শেয়ার করব মোবাইলটিতে গেম খেলার জন্য কতটুকু পারফেক্ট।

মোবাইল ফোনের দাম ২০২২ - realme 8 price in bangladesh

এই মোবাইলটিতে খেয়াল করলে দেখা যায় উপরের infinix note 11 pro তে আরো ভালো স্পেসিফিকেশন রয়েছে।

প্রসেসর থেকে শুরু করে র‌্যাম, ইন্টারনাল স্টোরেজ, ব্যাটারি এবং চার্জিং সবকিছুই কাছাকাছি।

প্রথমে আমিও মনে করেছি সবকিছু কাছাকাছি কিন্তু কিছু ব্যবধান আছে যার কারণে দামেরও একটু তফাৎ আছে।

তবে আশা করি এই দামে কোন বিতর্ক সৃষ্টি করবে না। আর আমি প্রতিটা মোবাইলের স্পেসিফিকেশন উল্লেখ করেছি।

তাই আপনারা realme 8 কিনুন আর ইনফিনিক্স নোট 11 কিনুন দেখে কিনবেন। আশা করি বুঝতে পেরেছেন।

মোবাইলটিতে রয়েছে 8 জিবি র‌্যাম। এবং 128 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।

সেইসাথে 5000mh ব্যাটারি এবং 30W ফাস্ট চার্জিং।

মোবাইলটি অনেক আগে বাজারে আসলেও ইউটিউবাররা বলে আসছে যে, গেমিং এর জন্য একটা পারফেক্ট মোবাইল হচ্ছে realme 8 মোবাইলটি।

realme 8 মোবাইলটি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন। আর ইউটিউব রিভিউ ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

redmi note 10s price in bangladesh

আমাদের আজকের আর্টিকেলে মোবাইল ফোনের দাম এ redmi note 10s এর অবস্থান দ্বিতীয়। ঠিক কোন কোন কারণে আমরা এর অবস্থান দ্বিতীয় রেখেছি তা জেনে নিন।

এই redmi note 10s সহ যতগুলো মোবাইলের দাম এবং এদের এর স্পেসিফিকেশন উল্লেখ করেছি তার সবগুলোই ইউটিউব এবং বিভিন্ন ব্লগ থেকে সংগ্রহ করে তারপরে লিস্ট করেছি।

তাই redmi note 10s  সহ যতগুলো মোবাইলের কথা বলেছি তার সবগুলো ভিন্ন ভিন্ন দিক বিবেচনা করে এরপরে লিস্ট করেছি। তাই আমার সাথে দ্বিমত থাকতেই পারে।

যাইহোক! আমরা মূল আলোচনায় চলে যাচ্ছি। নিচের ছবিতে আপনারা redmi note 10s মোবাইলটির বিবরণ দেখতে পাচ্ছেন।

মোবাইল ফোনের দাম ২০২২ - redmi note 10s price in bangladesh

এই মোবাইলটিতে রয়েছে AMOLED প্যানেল। ফুল এইচডি রেজুলেশন এবং 60HZ রিপ্রেস রেট।

তাই ডিসপ্লের দিকে বিবেচনা করলে সবকিছু এভারেজ থাকায় ফুল পারফরম্যান্স পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়াও প্রসেসরের দিকে দেখলে মিডিয়াটেক হেলিও g95 ব্যবহার করা হয়েছে।

যাদের প্রসেসর সম্পর্কে ধারণা রয়েছে তারা হয়তো বুঝতে পারবেন যে এটা মিডিয়াটেকের কেমন প্রসেসর।

যাইহোক! আমাদের আজকের লিস্টে মোবাইল থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে রেখেছি।

কারণ বাজেট রেঞ্জের মধ্যে ব্যাটারি চার্জার থেকে শুরু করে ক্যামেরা, ডিসপ্লে, প্রসেসর সবকিছুই ইউজার ফ্রেন্ডলি।

redmi note 10s মোবাইলটির দুইটা ভার্ষন রয়েছে। একটা হচ্ছে র‌্যাম 6 জিবি। এবং ইন্টারনাল স্টোরেজ 64gb

আরেকটা ভেরিয়েন্ট হচ্ছে র‌্যাম 8gb। এবং ইন্টারনাল স্টোরেজ 128gb। এই মোবাইলটি 6/128 জিবি ভ্যারিয়েন্টেও পাওয়া যায়।

ভেরিয়েন্ট অনুযায়ী দামও ভিন্ন ভিন্ন। বর্তমানে redmi note 10s এর তিনটা ভেরিয়েন্ট রয়েছে।

৳22,999 6/64 GB
৳24,999 6/128 GB
৳26,999 ৳27,999 8/128 GB

এই হচ্ছে মোবাইলটির তিনটা ভেরিয়েন্টের তিনটা ভিন্ন ভিন্ন দাম। প্রথম দুইটার র‌্যাম একই। সেখানে ইন্টারনাল স্টোরেজ এর ব্যবধান রয়েছে।

আজকের উল্লেখ করা মোবাইল ফোনের দাম এই লিস্টে আপনার কোনটি ভাল লেগেছে?

অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর লিস্টিং এ কোন প্রকার ত্রুটি হলে তাও কমেন্ট করে জানাবেন।

চলুন এবার দেখে নিই  আমাদের আজকের লিস্টে টপ 1 নম্বর মোবাইল কোনটি রেখেছি। আর মোবাইল ফোনের দাম এর করা লিস্টের মোবাইলগুলো এখনকার সময়ে বাজারে পেয়ে যাবেন।

realme 9 price in bangladesh

realme 9 এই মোবাইল ফোনের দাম জানার জন্য পুরোটা মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। আমাদের আজকের ব্লগে মোবাইল ফোনের দাম লিস্টিং পর্বে realme 9 মোবাইলটিকে টপ 1 এ রেখেছি।

বেশ কিছু কারণ এবং স্পেসিফিকেশন এর জন্য এই মোবাইলটিকে টপ ১ এ রেখেছি। চলুন জেনে নেই কি কি কারণে এই মোবাইলটি টপ এক নির্বাচিত হয়েছে।

প্রথমে আমরা মোবাইলটি স্পেসিফিকেশন দেখে নেবো যে এই মোবাইলটিতে কি কি রয়েছে। নিচের ফটোতে দেখে নিন

মোবাইল ফোনের দাম ২০২২ - realme 9 price in bangladesh

এই মোবাইলটিতে ফুল এইচডি প্লাস রেজুলেশন ডিসপ্লে। সুপার এমোলেড প্যানেল। এছাড়াও রয়েছে 90HZ রিপ্রেস রেট।

সুতরাং মোবাইলটি ব্যবহার করার সময় স্মূথলি ব্যবহার করতে পারবেন। আর প্যানেলটাও সুপার এমোলেড।

আর ক্যামেরা সেকশনে তো দেখতেই পাচ্ছেন, সেখানে ব্যাক ক্যামেরা রয়েছে 108+8+2 মেগাপিক্সেল।

আর সামনের ক্যামেরা হচ্ছে 16 মেগাপিক্সেল।

এই মোবাইলটির প্রতিটা সেকশনই আমার কাছে স্পেশাল মনে হয়েছে। যেমন এর চার্জিং প্রসেস। প্রায় আধ ঘন্টায় মোবাইলে অর্দেক চার্জ হয়ে যাবে।

আবার প্রসেসস হচ্ছে স্নাপড্রাগনের 680 4G প্রসেসর। এদিকে 5000 MAH ব্যাটারিও রয়েছে।

তাই আমার কাছে মনে হয়েছে যে এই মোবাইলটি বর্তমান সময়ে এই বাজেটে টপ লেভেলের।

তাই এই মোবাইলটি টপ বাজেটের মধ্যে টপ লেবেলের কিনা তা কমেন্ট করে জানিয়ে দিন। আর এই মোবাইলটির দাম হচ্ছে ৳26,990.00

প্রশ্নঃ

কম দামের মধ্যে ভালো ফোন কোনটা হবে?

আপনার বাজেট অনুযায়ী উপরের যে মোবাইলটা ভালো লাগবে সেটা কিনতে পারেন কারণ, এখানের সবগুলা মোবাইল বাজেট ফ্রেন্ডলি।

অনলাইনে মোবাইল কিনব কিভাবে?

আপনি যদি অনলাইনে মোবাইল কিনতে চান তবে, প্রথমে যেকোনো একটি ই-কমার্স সাইটে যেতে হবে। এরপর সেই সাইট থেকে আপনার পছন্দের মোবাইলটি কিনতে পারবেন

শেষ কথা:

মোবাইল ফোনের দাম বিবেচনায় realme 9 মোবাইলটিকে আমরা প্রথমে রেখেছি। যার কারণ হলো বাজেটের মধ্যে গেমিং এর জন্য এটাই সেরা হবে।

আশা করি আজকের ব্লগটি আপনার ভালো লাগবে। আর পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ!